,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

রাউজানে কিশোর কোরআনে হাফেজ নিখোঁজ

rএম বেলাল উদ্দিন,রাউজান, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: রাউজান উপজেলায় কিশোর কোরআনে হাফেজ নিখোজ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। গহিরা আলীয়া মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র মুবিনুল ইসলাম ফাহিম (১৩) গত ৪ নভেম্বর বিকাল ৪টায় বাড়ী থেকে মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে নিখোজ হয়। ফাহিম গহিরা মাদ্রাসার হেফজ বিভাগে ৮ পারা কোনআন মুখস্থ করেছে। জানা যায়, ফাহিম নোয়াজিষপুর গ্রামের রহমত আলী সিকদার বাড়ীর মো: মুনছুর ও রুজি আক্তার এর বড় ছেলে। দুই সন্তাদের মধ্যে ফাহিম সবার বড়। হতদরিদ্র পরিবারের সন্তান ফাহিম। তার বাবা গ্রামে রিক্সা চালিয়ে কোনমতে সংসার চালায়। দুঃখ-সুখে দিনকাটতে হয় তাদের।
ফাহিমের পিতা মুনছুর জানান, শুক্রবার বাড়ীতে একটি জানাযার নামাজ শেষ করে বিকেলের দিকে ফাহিম মাদ্রাসার উদ্দেশে ঘর থেকে বের হয়। পরে মাদ্রাসায় খোজ নিয়ে জানাতে পারি ছেলে মাদ্রাসায় যায়নি। না যাওয়ার খবরে বাড়ীতে কান্নাকাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে স্থানীয় কয়েকজনসহ ফাহিমের খোজে ভের হই। তিনি আরো বলেন, এলাকার কয়েকজন ব্যক্তির বলেছে ফাহিমকে ইছাপুরবাজার, গহিরা চৌমুহনী ও ছিপাতলীতে হেটে যেতে দেখেছে। আমি ঐসব এলাকায় গিয়েও ফাহিমের খোজ পায়নি। স্থানীয়রা জানান, ফাহিমকে মাদ্রাসার হেফজ বিভাগে ভর্তি করার পর দুই-তিনবার মাদ্রাসা থেকে পালিয়ে বাড়ী চলে আসত। তার বাবা মেরে মেরে আবার মাদ্রাসায় পাঠাত। এলাকাবাসীরা মনে করছে লেখাপড়া না করার জন্য বাড়ী ও মাদ্রাসা ছেড়ে দুরে কোথাও পালিয়েছে ফাহিম।স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা বিপুল সিকদার বলেন, হতদরিদ্র পরিবারের ছেলে ফাহিমের খোজ নিচ্ছে এলাকার সবাই। আমার দিনরাত চেষ্টা করে যাচ্ছি। এটি সাধারণ একটি ঘটনা। আমরা দ্রুত ফাহিমের খোজ পাব।রাউজান থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ২০ নভেম্বর ফাহিমের বাবা একটি সাধারণ ডায়েরী (নং ১০১৫০২) রুজু করেন। যদি কোন ব্যক্তি খোঁজ ফেলে ০১৮৪৮২৫০৫৭৩ যোগাযোগ করতে অনুরোধ করেছে ফাহিমের বাবা।

মতামত...