,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

রাউজানে গণপিটুনিতে ডাকাত নিহত, কার্তুজসহ অস্ত্র উদ্ধার

aএম বেলাল উদ্দিন, রাউজান সংবাদদাতা, বিডিনিউজ রিভিউজঃ রাউজানে ডাকতির প্রস্তুতিকালে জনতার গণপিটুনিতে এক ডাকাত সদস্য নিহতের ঘটনা ঘটেছে। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের এয়াছিন নগর জাইল্যাটিলা নামকস্থানে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ডাকাত সদস্য রাউজান পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের ভানু সিকদার বাড়ির মৃত হোসেন আলী মিস্ত্রির পুত্র মো. জয়নাল আবেদীন হাশেম প্রকাশ হেজা হাশেইম্যা (৪২)।

রাউজান থানা সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে জাইল্যাটিলা নামকস্থানে ২০/২৫ জনের একটি ডাকাতদল ডাকাতির প্রস্তুতি নেয়ার সময় স্থানীয়রা টের পেয়ে স্থানীয় উত্তেজিত জনতা লাঠিসোঠা হাতে নিয়ে ডাকাতদের প্রতিহত করার জন্য আগ্রমণ করলে জনতার উপস্থিতির টের পেয়ে ডাকাত সদস্যরা পালিয়ে যেতে চেষ্টা করে। এসময় এক ডাকাত সদস্য জনতার গণপিটুনির শিকার হন। ওই ডাকাত সদস্যকে উদ্ধার করে প্রথমে রাউজান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য এ্যাম্বুলেন্সযোগে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চমেকে চিকিৎসাধিন অবস্থায় গতকাল শুক্রবার ভোর ০৫.৪৫ মিনিটে তার মৃত্যু হয়। ঘটনাস্থল থেকে ১টি দেশীয় তৈরি বন্দুক, ১টি কার্তুজ, ৪টি কিরিচ ও ৯টি বিভিন্ন রংয়ের চেন্ডেল উদ্ধার করেছে পুলিশ। নগরীর পাঁচলাইশ থানা কর্তৃক লাশের পিএম কার্য সম্পাদন হয়েছে। এসংক্রান্ত মামলার রুজুর পক্রিয়া চলছে বলেও নিশ্চিত করেছে পুলিশ। এদিকে নিহতের পরিবারের দাবি ‘শ্বশুড়বাড়ি থেকে নিজ বাড়ি ফেরার পথে তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। কি কারণে হত্যা করা হয়েছে এমন প্রশ্নের উত্তরে নিহতের পুত্র সাগর বলেন তিনি বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত থাকায় তিনি হত্যা কান্ডের শিকার হয়েছেন। হাশেম রাউজান পৌরসভা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক পদস্থ রয়েছেন বলেও নিশ্চিত করেছে নিহতের পরিবার। নিহত ডাকাত হাশেমের ৪ পুত্র ও ২ কন্যা সন্তান রয়েছে বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য যে, নিহত হাশেম ২০১৪ সালে ডাকাতি মামলায় চার্জশিটভুক্ত আসামি।

মতামত...