,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

রাউজানে নলকূপে নির্গত হচ্ছে গ্যাস!

এম বেলাল উদ্দিন, রাউজান (চট্টগ্রাম),৯ জানুয়ারী, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলায় সদ্য স্থাপনকৃত একটি নলকূপে নির্গত হচ্ছে গ্যাস। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। গত কয়েকদিন আগে সদ্য স্থাপিত নলকূপে গ্যাস নির্গতের খবর ছড়িয়ে পড়লে তা দেখতে উপজেলার ডাবুয়া ইউনিয়নের উত্তর হিংগলা বাছন আলী তালুকদার বাড়ীতে ভীড় জামাচ্ছেন স্থানীয় উৎসুক জনতা। স্থানীয়রা জানান, উপজেলার ডাবুয়া ইউনিয়নের উত্তর হিংগলা বাছন আলী তালুকদার বাড়ীর মৃত মুন্সি মিয়ার পুত্র জীপ চালক ফোরক আহম্মদ তার ঘরের সামনে একটি অগভীর নলকূপ স্থাপনের সময় পানির সাথে গ্যাস নির্গত হচ্ছে বলে আঁচ করতে পারে। প্রাথমিকভাবে আগুন লাগিয়ে গ্যাস নির্গতের বিষয়টি নিশ্চত হন স্থানীয়রা। জানা গেছে, গভীর নলকূপে পানি সংকট থাকায় উপজেলার বিভিন্ন স্থানে একশ ফুট গভীরতার মধ্যে নলকূপ স্থাপন করা হচ্ছে। একইভাবে জীপ চালক ফোরক আহম্দ ৪০ ফুট গভীরে নলকূপ স্থাপন করেন। ওই নলকূপে গ্যাস নির্গত হয়। পরে রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শামীম হোসেনকে ঘটনা সর্ম্পকে জানানো হলে তিনি পরিদর্শনে গিয়ে আগুন লাগিয়ে গ্যাস নির্গতের বিষয়ে নিশ্চিত হন। এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শামীম হোসেন বলেন ‘আমি সরেজমিন গিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছি। তবে গ্যাস নির্গত হলেও তা পর্যাপ্ত নয়। এভাবে সাতদিন গ্যাস নির্গত হলে বিষয়টি জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ে জানানো হবে। পরিক্ষা-নিরিক্ষার মাধ্যমে যদি এখানে গ্যাসের সন্ধান পাওয়া যায় এইটা রাউজান বাসীর জন্য তথা দেশের জন্য একটি সুসংবাদ। গ্যাস নির্গত হওয়া নলকূপ থেকে আগুনের দৃরত্ব বজায় রাখার জন্য স্থানীয়দের প্রতি আহব্বান জানান। এই ঘটনায় মালিক আতঙ্কগ্রস্ত হলেও গ্যাস পাওয়ায় এলাকাজুড়ে আনন্দ বিরাজ করছে। স্থানীয়দের ধারণা মাটির নিচে পর্যাপ্ত পরিমাণ গ্যাস মজুদ রয়েছে। ব্যাপারটি পরিক্ষা-নিরিক্ষার আওতায় আনা প্রয়োজন বলে মনে করছেন তারা।এদিকে গতকাল সোমবার দুপুরে এই রিপোর্ট তৈরির আগ পর্যন্ত ঐ নলকুপ দিয়ে গ্যাস নির্গত হচ্ছিল।

মতামত...