,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

রাঙামাটি শহরকে লোডশেডিংমুক্ত রাখার অনুরোধ মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরীর

rমোঃ সাইফুল উদ্দীন, রাঙামাটি,বিডিনিউজ রিভিউজঃ রাঙামাটি শহরে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে পিডিবি কর্মকর্তাদের অনুরোধ জানিয়েছেন রাঙামাটি পৌরসভা মেয়র মোঃ আকবর হোসেন চৌধুরী। রাঙামাটি শহরকে লোডশেডিংমুক্ত করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে রাঙামাটি পৌরসভা মেয়র পিডিবির কর্মকর্তাদের জরুরী উদ্যোগ নেয়ার আহবান জানান।

মঙ্গলবার সকালে রাঙামাটি বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সবুজ কান্তি মজুমদারসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠককালে এ আহবান জানান পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী।

মেয়রের সাথে বৈঠককালে রাঙামাটি বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সবুজ কান্তি মজুমদার মেয়রকে বলেন, রাঙামাটিতে বিদ্যুতের আশানুরুপ উৎপাদন থাকলে ও টেকনিকেল সমস্যার কারনেই শহরে লোডশেডিং হচ্ছে। তিনি আরো জানান, রাঙামাটির বিভিন্ন সঞ্চালন লাইনের তারগুলো পুরোনো হয়ে যাওয়ার কারনে সেসব সঞ্চালন লাইনে কারেন্ট সরবরাহ করতে সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। তাই সঞ্চালন লাইনের তার পরিবর্তন কার্যক্রম শুরু হওয়াতে লোডশেডিং হচ্ছে। রাঙামাটিতে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে প্রায় ৩৬ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে সঞ্চালন লাইনের কারেন্টের তার পরিবর্তন কাজ শুরু হয়েছে বলে জানান পিডিপির এই কর্মকর্তা। ইতিমধ্যে প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকায় সঞ্চালন লাইনের তার পরিবর্তন করা হয়েছে। বাকীগুলো পরিবর্তন কাজ চলছে।

রাঙামাটি পৌরসভা মেয়রের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে বিদ্যুৎবিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সবুজ কান্তি মজুমদার আরো জানান, বর্তমানে যে সঞ্চালন লাইন রয়েছে তাতে রাঙামাটির বিদ্যুৎ চাহিদার ১০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্ভব হলেও রাঙামাটিবাসীর বিদ্যুতের বেশী চাহিদা মিটানোর জন্য সঞ্চালন লাইনে বর্তমানে যে সংস্কার করা হচ্ছে তাতে ভবিষ্যতে ১০ মেগাওয়াটের জায়গায় ২ মেগাওয়াট চাহিদা পূরন সম্ভব । তাই বর্তমানে বিদ্যুৎ নিয়ে শহরবাসী কিছুটা সময় কষ্ঠ পেলেও সঞ্চালন লাইনের সংস্কার কার্যক্রম শেষ হলে লোডশেডিং মুক্ত রাঙামাটি আমরা উপহার দিতে পারব।

এসময় রাঙামাটি পৌরসভা মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী বলেন, রাঙামাটিতে যথেষ্ট পরিমান বিদ্যুৎ উৎপাদিত হলেও পৌরবাসী বিদ্যুৎ বঞ্চিত হবে এটা মেনে নেয়া যায়না। তিনি বিদ্যুৎ কর্মকর্তাদের বলেন, যতরকম সমস্যাই থাকনা কেনো তা অচিরেই সমাধান করে রাঙামাটিতে লোডশেডিং মুক্ত করতে হবে। মেয়র আরো বলেন, পার্বত্যবাসীর অনেক ত্যাগের ফলেই কাপ্তাই বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। পার্বত্যবাসীর ত্যাগের বিষয়টি মাথায় রেখে তৎকালীন সময়ে পার্বত্যবাসীকে বিদ্যুৎ নিয়ে যে প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছিল তা মাথায় রেখে কাজ করতে তিনি বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তাদের অনুরোধ জানান। কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক শেষে মেয়র বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মচারীদের সাথে আরো একটি বৈঠকে মিলিত হন। কর্মচারীদের সাথে বৈঠককালে মেয়র শহরে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে সহযোগীতা করতে কর্মচারীসহ অন্যান্য নেতৃবেৃন্দর প্রতি আহবান জানান।

মতামত...