,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

রাজধানীর জোড়া খুনের মামলা ডিবিতে, কিলিং মিশনে ৪

aনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ ঢাকা, সমকামী অধিকার কর্মী জুলহাজ মান্নান ও তার বন্ধু নাট্যকার মাহবুব রাব্বী তনয় হত্যাকাণ্ডের মামলাটি পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় মামলা ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে  জানিয়েছেন রমনা জোনের এডিসি মো. জসিম।

খুনের ঘটনায় সাত প্রত্যক্ষভাবে অংশ নেয়। এদের সবাইকে নিজ চোখে দেখেছেন বলে জানিয়েছেন ভবনের নিরাপত্তাকর্মী পারভেজ মোল্লা।

তিনি বলেন, ভবনের দ্বিতীয় তলায় জুলহাজ স্যারের রুমে ঢোকে ৪ জন, ভবনের মেইন গেটের ভেতরে দুই জন ঢুকে আমাদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে। আর একজন বাইরে দাঁড়িয়ে ছিল।

তিনি আরও বলেন, ভবনের ওপরে যাওয়া ৪ জনের মাথায় ক্যাপ ছিল। নীল রঙের গেঞ্জি প্যান্টের সঙ্গে ইন করা এবং পায়ে কালো জুতা ছিল। আর খুনিরা ভেতরে ঢুকে ৪ থেকে ৫ মিনিট অবস্থান করেছিল।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর কলাবাগানের ৩৫ লেক সার্কাস রোডের আছিয়া নিবাস ভবনের নিরাপত্তাকর্মী পারভেজ মোল্লা সাংবাদিকদের এসব কথা জানান। এই ভবনের নিজ বাসাতে খুন হোন জুলহাজ ও তনয়। জুলহাজ বাংলাদেশের প্রথম সমকামী ম্যাগাজিন ‘রূপবান’ এর সম্পাদক ছিলেন। তার বন্ধু তনয়ও সমকামি ছিলেন বলে জানিয়েছেন তাদের বন্ধু।

নিজ কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, তারা (জুলহাজরা) একটি সংগঠন করত। সেখানে কোনো আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত সমস্যা অথবা কোনো সংঘবদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠী ঘটনাটি ঘটিয়েছে কি না কোনো সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছি না। তদন্তের প্রাথমিক পর্যায়ে আছি। দুই-চারদিন গেলেই এই বিষয়ে সিদ্ধান্তে আসতে পারব।

কিলিং মিশনে সাত জন জড়িত থাকার কথাও জানান পুলিশ কমিশনার। আর খুনিদের যে ব্যাগটি কেড়ে নেয়া হয়েছে তাতে গুরুত্বপূর্ণ আলামত মিলেছে বলেও জানান তিনি।

সোমবার ২৫ এপ্রিল  বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে জুলহাজ মান্নান ও তার বন্ধু মাহবুব রাব্বী তনয়কে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এর পরদিন কলাবাগান থানায় চার/পাঁচ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে মামলা করেন জুলহাজের ভাই মিনহাজ মান্নান।

 

মতামত...