,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক সিদ্দিকীকে গলা কেটে হত্যা

aরাজশাহী সংবাদদাতা, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ রাজশাহী,রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক এ এফ এম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় বোয়ালিয়া থানার শালবাগান এলাকার বটতলা মোড়ে তাকে হত্যা করা হয় বলে বোয়ালিয়া থানার ওসি শাহাদাত হোসেন জানিয়েছেন।

হত্যাকাণ্ডস্থল থেকে ১৫০ গজ দূরে অধ্যাপক রেজাউলের বাড়ি।

কী কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে, তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি।

নিহতের বোনের জামাই মাহাবুব আলম জানান, সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি। বাড়ি থেকে ১৫০ গজ দূরে যাওয়ার পর মোটরসাইকেলযোগে দুই-তিনজন দুর্বৃত্ত পেছন থেকে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। তাৎক্ষণিকভাবে কাউকে চেনা সম্ভব হয়নি বলে জানান তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসের জন্য শালবাগান এলাকায় অপেক্ষা করছিলেন রেজাউল করিম। এ সময় কয়েকজন দুর্বৃত্ত এসে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও গলা কেটে তাকে হত্যা করে। হত্যাকাণ্ডের পর দুজন দুর্বৃত্তকে রেলগেট এলাকা দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যেতে দেখা যায়।

এ হত্যাকাণ্ডের সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু শিক্ষার্থীও ওই এলাকায় বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। তবে তারা ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়ায় দুর্বৃত্তদের আটক করতে পারেননি।

হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে।

দুই বছর আগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে খুন হন আরেক অধ্যাপক এ কে এম শফিউল ইসলাম।

সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক শফিউলকে হত্যার পর জঙ্গিদের দায় স্বীকারের খবর এলেও পরে পুলিশের তদন্তে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার ধারণাটি নাকচ করা হয়।

পুলিশের দেওয়া অভিযোগপত্রে বলা হয়, ব্যক্তিগত বিরোধের কারণে হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছিলেন অধ্যাপক শফিউল।

তারও বেশ আগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আরো দুজন শিক্ষক হত্যাকাণ্ডের শিকার হন।

 

মতামত...