,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

শক্তিশালী ভূমিকম্প সারাদেশে

712নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা,৪, জানুয়ারি (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম)::  শক্তিশালী ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশ । সোমবার ভোর ৫ টার একটু পরে এ ভূকম্পন অনুভূত হয়। ভূমিকম্পে ঢাকা,চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও লালমনিরহাটে তিনজনের মৃত্যেু,সারাদেশে আহত হয়েছেন শতাধিক। সোমবার সকালে ভূমিকম্পের আতঙ্কে রাজধানীর জুরাইনে ভবন থেকে তাড়াহুড়া করে নামতে গিয়ে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আতিকুর রহমান আতিক (২৭) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে রাজশাহীতে ভূমিকম্পনের সময় আতঙ্কে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হলের প্রধান বাবুর্চি খলিলুর রহমান (৩৮) মারা গেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোস্ট ড. মোহাম্মদ জাহিদ হাসান এ তথ্যের সত্যতা জানান।  লালমনিরহাটে ভূমিকম্পে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। রিকটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৬.৮।

ভারত-আসাম সীমান্তে ছিল এর উৎপত্তি। গত এক বছরের মধ্যে এই ভূমিকম্পই সবচেয়ে শক্তিশালী ছিল বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতির প্রকৃত পরিমাণ জানা যায়নি। তবে আতঙ্কে অনেক এলাকায় লোকজ বাইরে চলে আসে। অনেক এলাকার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। রাজধানীর প্রগতি সরণীসহ বিভিন্ন স্থানে ফাটল দেখা গেছে। শেষ রাতে সবাই ঘুমে কাতর ছিল। আর তীব্র ভূমিকম্প অনুভূত হলে সবাই নিচে নামতে থাকে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের শিক্ষার্থীরা হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে ১৬ জন আহত হয়েছে। যার মধ্যে জসিম উদ্দিন হলের রয়েছেন ২জন, জিয়া হলের ১জন, সূর্যসেন হলের ২জন, বঙ্গবন্ধু হলের ২জন, জহুরুল হলের ১জন, একুশে হলের ৩জন এবং মহসিন হলের ২জন। সবাইকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন লালন মাহমুদ। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ মোজাম্মেল হক জানান, আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে দ্রুত সিঁড়ি দিয়ে নামার সময় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে যায় আতিকুর রহমানের। পরে তাকে ঢামেকে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে ঢামেক জরুরি বিভাগের টিকিট কাউন্টারে রাত্রীকালীন ডিউটিতে থাকা টিকিটম্যান হাবিবুর রহমান জানান, এ পর্যন্ত ২৯ জন আহত ব্যক্তি ঢামেকে চিকিৎসা নিয়েছেন। এদের বেশিরভাগই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। শাঁখারী বাজারে ভবনে ফাটল ভূমিকম্পে পুরান ঢাকার শাঁখারী বাজার এলাকার একটি ভবনে ফাটল দেখা দিয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। এসময় আতঙ্কে ভবনের বাসিন্দারা দ্রুত নিচে নেমে আসেন। শাঁখারী বাজারের স্থানীয় বাসিন্দা বাসুদেব  জানান, ভূমিকম্পে শাঁখারী বাজার এলাকার ৬২ নম্বর বাসাটিতে ফাটল দেখা দিয়েছে। তবে কেনো হতাহত ঘটনা ঘটেনি। ভূমিকম্পে পুরো এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। কেঁপে উঠল কুমিল্লা নগরীর মসজিদে তখনই ফজরের আযান হয়নি। অধিকাংশ লোক তখনও গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন। হঠাৎ চারদিকে মানুষের আর্ত-চিৎকার। বাসা-বাড়ি থেকে মানুষ রাস্তায় নেমে আসে। শক্তিশালী ভূমিকম্পে সোমবার ভোর প্রায় ৫টা ৫ মিনিটে সারা দেশের ন্যায় কুমিল্লাও কেঁপে উঠে। কয়েক সেকেন্ডে স্থায়ী ওই ভূমি কম্পনের ফলে মানুষের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। বিশেষ করে নগরীর বহুতল ভবনের বাসিন্দারা ভয়ে আতংকিত হয়ে ভবন থেকে নীচে রাস্তায় নেমে আসে। এদিকে ভূমিকম্পনের ফলে এখনো কুমিল্লার কোন ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। চুয়াডাঙ্গা ও আশপাশ এলাকায় ভূ-কম্পন অনুভূত ৪ জানুয়ারি সোমবার ভোর ৫টা ৫ মিনিটে চুয়াডাঙ্গা জেলার সর্বত্র ও এর আশপাশ এলাকায় শক্তিশালী ভূ-কম্পন অনুভূত হয়েছে। এই ভূ-কম্পনের স্থায়ীত্ব ছিল ৫ থেকে ৭ সেকেণ্ড। এ অবস্থায়, এই জনপদের ঘূমন্ত অনেক মানুষ জেগে ওঠে এবং ঘর-বাড়ি থেকে দ্রুত বাইরে ফাঁকা স্থানে গিয়ে আশ্রয় নেয়। ভোর পর্যন্ত ক্ষয়ক্ষতির কোন খবর জানা জানা যায়নি। রাজধানীর ইস্কাটনের একটি আবাসিক কম্পাউন্ডের কয়েকশ বাসিন্দাকে দেখা যায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে। তাদেরই একজন জানালেন, ১৪তলা ভবনগুলো এমনভাবে নড়ছিলো যে, ছাদের পানির ট্যাংক থেকে ছলকে পানি পড়ছিলো। অন্য একজন বললেন, এটা ছিলো সশব্দ ভূমিকম্প। সাধারণত ভূমিকম্পে এমন শব্দ শোনা যায় না। যারা ঘুমিয়ে ছিলেন, তারা জানালেন, কাঁপুনিতে ঘরের কাঠের আসবাবগুলোতে শব্দ হচ্ছিলো।  রাজধানী ঢাকা ছাড়াও ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম, সিলেট, বগুড়াসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে বলে জানা গেছে।

মতামত...