,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

শীতে শরির গরম রাখবে যে খাবার

কখনও লক্ষ্য করেছেন কি? শীতের দিনে আমাদের ক্ষুধার পরিমাণ তুলনামূলকভাবে বেড়ে যায়। আয়ুর্বেদিক চিকিৎসার মতে, শীতের সময় আমাদের হজমশক্তি বৃদ্ধি পায়। কিন্তু শীতে আমাদের ত্বক তুলনামূলকভাবে বেশি রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যায়। এসময় ঠাণ্ডাজনিত রোগ অনেক বেশি দেখা যায়। তাই অবশ্যই স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া উচিৎ।

এ সময় যে সকল খাবার খাওয়া প্রয়োজন তা নিম্নে আলোচনা করা হল-

১. শাকসবজি:
সারা বছর ধরেই আমাদের খাদ্যতালিকায় শাকসবজিকে প্রাধান্য দিতে হবে। কারণ এর কোন অপকারিতা নেই। তবে এর উপকারিতার কোন অভাব নেই। এতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও খনিজ পদার্থ থাকার কারণে এটি আমাদের ইমিউন সিস্টেমকে শক্তিশালী করে।

২. মসলা:
গোল মরিচ, লবঙ্গ, দারচিনি ইত্যাদি সহ সকল মসলাদি শীতকালে বেশি পরিমাণে গ্রহণ করা উচিৎ। এটি ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা কমাতে সাহায্য করে। কাশি ও সর্দি দূর করতে এদের উপকারিতা অনেক। গরম পানির সাথে এসকল মসলাদি সেদ্ধ করে পানি পান করুন। তাহলে খুব সহজে ঠাণ্ডার সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন।

৩. শুঁকনো ফল:
শুঁকনো ফল অর্থাৎ বাদাম, কিসমিস, এপ্রিকট ইত্যাদি শরীরকে উষ্ণ রাখতে সাহায্য করে। তাই শীতের সময় এগুলো খেতে পারেন।

৪. ফল:
তাজা ফল যেমন- কমলা, পেঁপে, আমলকী ইত্যাদি ভিটামিন সি দিয়ে ভরপুর ফল খেতে পারেন। এতে আপনার ইমিউন সিস্টেমের কার্যকারিতায় উপকার হবে।

৫. প্রাকৃতিক মিষ্টি:
প্রাকৃতিক মিষ্টির উৎস অর্থাৎ গুঁড় ও মধু চিনির পরিবর্তে খাওয়ার অভ্যাস করুন। এতে আপনার পরিপাক তন্ত্রের হজম শক্তি বৃদ্ধি পাবে এবং এটি আপনার রক্তের শর্করার মাত্রা সঠিক রাখবে। -সূত্র: ইন্ডিয়া টাইম্‌স।food

মতামত...