,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

সাতকানিয়া ঢেমশা উচ্চ বিদ্যালয়ে পুরস্কার বিতরনে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান

নিজস্ব প্রতিবেদক, ১৯ মার্চ, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম::প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশকে নতুন করে বিশ্ব দরবারে সম্ভাবনাময় দেশে পরিণত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বছরের প্রথম দিন শিক্ষার্থীদের হাতে পাঠ্যবই তুলে দিয়ে বিশ্বে তুলনাহীন নজির সৃষ্টি করেছেন। তাঁর নেতৃত্বে শিক্ষা বিস্তারে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপিত হয়েছে। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের মানুষের কল্যাণে প্রধানমন্ত্রী যে কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন তা ২০২১ সালে দেশকে মধ্যম আয়ে দেশে পরিণত করবে। বাংলাদেশকে এক সময় আমেরিকা তলাবিহীন ঝুঁড়ি বলেছিল। এখন তারাই বলছে বিশ্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের মডেল। আমাদের এ অর্জন শেখ হাসিনার নেতৃত্বের গুণে। তিনি শিক্ষা খাতে সরকারের গৃহীত সর্বোচ্চ বাজেটের কথা তুলে ধরে বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে প্রভূত উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। আগামীতে ঢেমশা উচ্চ বিদ্যালয়কে সরকারিকরণে এবং মহাবিদ্যালয়ে পরিণত করার লক্ষ্যে তার পক্ষে যত রকম সহযোগিতা প্রয়োজন তা দেয়ার আশ্বাস দেন।
তিনি বলেন, মার্চ মাস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি মাস। এ মাসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্মগ্রহণ করেছেন, এ মাসে দেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করা হয় এবং স্বাধীনতা দিবস পালন করা হয়। আবার ২৫ মার্চ কালো রাত্রি। এ দিনটিকে সরকারিভাবে গণহত্যা দিবস হিসেবে পালনের ঘোষণা দেয়া হয়। আমাদের প্রত্যাশা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের মতো এ গণহত্যা দিবসটিও বিশ্বে পালিত হবে।
গতকাল (শনিবার) বিকালে সাতকানিয়া উপজেলার ঐতিহ্য ও গৌরবের স্মৃতিবাহী বিদ্যাপীঠ ঢেমশা উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া-সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ও স্মৃতিবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
পরে তিনি বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার এবং মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শহীদ অধ্যাপক দিলীপ চৌধুরী স্মৃতিবৃত্তি, এডভোকেট যতীন্দ্র মোহন ও মাধুরী প্রভা চৌধুরী স্মৃতিবৃত্তি, পেয়ারজান-সালাম স্মৃতিবৃত্তি, অমরেন্দ্র-নীলাবতী বড়ুয়া বৃত্তি ও ছিদ্দিক আহমদ স্মৃতিবৃত্তি প্রদান করেন। প্রধান অতিথি বিদ্যালয়ে বিশেষ অবদানের জন্যে বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী আলহাজ্ব আবদুচ সামাদ ও মোহাম্মদ মোসলেম উদ্দীনের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন।
বিদ্যালয়ের প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আবু সুফিয়ান। স্বাগত বক্তব্য দেন বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্য শশী ভূষণ বড়ুয়া। তিনি ১১০ বছরের ঐতিহ্যবাহী এ স্কুলকে সরকারিকরণের দাবি জানান। বার্ষিক প্রতিবেদন পাঠ করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দয়াল হরি মজুমদার। মানপত্র পাঠ করেন বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক রনজিত কুমার বড়ুয়া। বিশেষ অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সি. সহ সভাপতি মো. ইদ্রিচ, সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ উল্যাহ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম, জেলা পরিষদ সদস্য মো. জসীম উদ্দীন, সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সি. সহ সভাপতি মাষ্টার ফরিদুল আলম, সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রফিকুল হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি মোজাম্মেল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম সম্পাদক ফয়েজ আহমদ লিটন, দপ্তর সম্পাদক সাইদুর রহমান দুলাল।
বক্তব্য রাখেন, আমিলাইশ ইউপি চেয়ারম্যান এইচ এম হানিফ, ঢেমশা ইউপি চেয়ারম্যান মো. রিদুয়ান উদ্দীন, নলুয়া ইউপি চেয়ারম্যান তসলিমা আবছার, ঢেমশা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. কামাল উদ্দীন, ইছামতি মুহাম্মদিয়া আদর্শ দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা মুহাম্মদ আবদুর রহিম, সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য আসাদুজ্জামান জনি, দক্ষিণ জেলা প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পরিষদ সভাপতি মোর্শেদ আলম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আসিফ ইকবাল, ফতেয়াবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুভাষ দাশ, ছাত্রনেতা সৈকত চৌধুরী প্রমুখ। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন সাংবাদিক সুকান্ত বিকাশ ধর।
শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলোয়াত, পবিত্র গীতা ও পবিত্র ত্রিপিটক পাঠ করেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক যথাক্রমে মাওলানা মো. মুহিউদ্দীন, তরুণ কান্তি ধর, অমল কান্তি বড়ুয়া। জাতীয় সংগীত শেষে প্রিমা বড়ুয়ার নেতৃত্বে উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করা হয়।
সভাপতির বক্তব্যে রূপালী ব্যাংকের পরিচালক, বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আবু সুফিয়ান বলেন, শিক্ষা অমূল্য সম্পদ। শিক্ষা ছাড়া কোন জাতি উন্নত নয়। এ উপলব্ধি থেকেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ সরকার শিক্ষার উন্নয়নে ব্যাপক কাজ করেছে। কেবল সাধারণ শিক্ষা নয়। শিক্ষাবান্ধব এ সরকার পৃথিবীর যে কোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় জাতিকে শিক্ষিত করতে সর্বস্তরে প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করেছে। বর্তমান সরকার শিক্ষার পাশাপাশি ক্রীড়াক্ষেত্রেও বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে। খেলাধূলোর মাধ্যমে দেশকে বিশ্বে তুলে ধরা যায় অতি সহজে। তিনি শিক্ষা ও ক্রীড়াক্ষেত্রে সরকারের বিদ্যমান এ সুযোগকে গ্রহণের মাধ্যমে আমাদের সন্তানদের শিক্ষিত জাতি হিসেবে গড়ে তুলতে অভিভাবকসহ স্থানীয় জনসাধারণকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

মতামত...