,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

সীতাকুন্ডে শিপইয়ার্ড মালিকের কাছে ৫০ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ

সীতাকুন্ড সংবাদদাতা, ,বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: সীতাকুন্ডে শিপইয়ার্ড মালিকের কাছে ৫০ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার তাকে আদালতে চালান দেয়া হয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর পক্ষ থেকে থানায় সুনির্দিষ্ট দুই জন ও অজ্ঞাত আরো ৬/৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, সীতাকু-ের ফৌজদারহাট সাগর উপকূলে অবস্থিত কে.আর স্টিল শিপব্রেকিং ইয়ার্ডের মালিক মো. সেকান্দার হোসেন টিংকু’র কাছে স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি বারবার ৫০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল। এই টাকা না দিলে তাকে কোনভাবেই ব্যবসা করতে দেওয়া হবে না বলে ধমকি দেয় চাঁদাবাজ চক্রের সদস্যরা। এছাড়া টাকা না দিলে ঐ ইয়ার্ডের সিকিউরিটি ইনচার্জ মো. আফসারকেও অপহরণের হুমকি দেওয়া হয়। সর্বশেষ গত ৬ ডিসেম্বর সলিমপুর ইউনিয়নের ফৌজদারহাট মৌলভী ইয়াকুবের বাড়ির মরহুম কবির আহমেদের পুত্র মো. মিয়া (৫১) ও জসীম (৫৩) অজ্ঞাত ৬/৭ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী নিয়ে শিপব্রেকিং ইয়ার্ডে প্রবেশ করে মালিক সেকান্দার হোসেনকে খুঁজতে থাকে। কিন্তু মালিক না থাকায় ইয়ার্ড ম্যানেজারকে মো. আতিক উল্লাহর কাছে টাকা চায় তারা। তিনি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে সন্ত্রাসীরা তাকে ব্যাপক মারধর করে। এতে তিনি আহত হন। এসময় ঐ ইয়ার্ডে জানালার কাঁচ, টেবিল, চেয়ার ভাঙচুর করে তারা। এতে প্রায় অর্ধলক্ষ টাকার সম্পদহানি ঘটে।

এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে কে আর স্টিল শিপব্রেকিং ইয়ার্ডের ম্যানেজার মো. আতিক উল্ল্যাহ বাদী হয়ে থানায় মো. মিয়া (৫১) ও জসীম (৫৩) অজ্ঞাত ৬/৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলে মো. মিয়াকে গ্রেপ্তার করেন সীতাকুন্ড থানার এসআই মো. ইকবাল।

শনিবার তাকে আদালতে চালান করা হয়। কে আর স্টিলের মালিক মো. সেকান্দার হোসাইন টিংকু জানান, উক্ত সন্ত্রাসী চক্র তার কাছে বিভিন্ন সময়ে ৫০ লাখ ও তারও বেশি টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। শেষ পর্যন্ত তারা সব সীমা ছাড়িয়ে ইয়ার্ডে হামলা ভাঙচুর ও ম্যানেজারকে মারধর করেছে। তাই তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। সীতাকু- থানার এসআই মো. ইকবাল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, চাঁদাবাজির মামলায় অভিযুক্ত মো. মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মতামত...