,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

সুন্দরবনের দস্যু জাহাংগীর বাহিনীর বিরুদ্ধে দস্যুতা ও অস্ত্র আইনে মামলা

বাগেরহাট প্রতিনিধি,২৯ বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র তুলে দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পন করা বনদস্যু জাহাংগীর বাহিনীর প্রধান মোঃ জাহাংগীর শিকারী (৩৯)সহ ২০ বনদস্যুর নামে রবিবার বিকেলে বাগেরহাটের শরনখোলা থানায় দস্যুতা ও অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। র‌্যাব-৮ এর ডিএডি মোঃ দোলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে এই মামালা দায়ের করেন। এর আগে বনদস্যু জাহাংগীর বাহিনীর ২০ সদস্যকে ৩১টি আগ্নেয়ান্ত্র ও ১ হাজার ৫শ ৭ রাউন্ড গুলিসহ শরনখোলা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে র‌্যাব।
আজ রবিবার দুপুরে বরিশাল র‌্যাব-৮ এর কার্যালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের হাতে অস্ত্র ও গোলাবারুদ জমা দিয়ে সুন্দরবনের অন্যতম বড় বনদস্যু জাহাংগীর বাহিনীর ২০ সদস্য আত্মসর্মাপন করে।
বাগেরহাটের শরণখোলা থানায় দস্যুতা ও অন্ত্র আইনে দায়ের করা মামলায় আসামীদের মধ্যে রয়েছে, জাহাঙ্গীর বাহিনীর প্রধান মো. জাহাঙ্গীর শিকারী (৩৮), মো. শেখ ফরিদ (৩৮), মো. মারুফ শেখ (৪১), মো. আকরাম শেখ (৩৫), মো. মোস্তাহার শেখ (৫০), মো. এরশাদ খান (৩৫), মো. গাজী তরিকুল ইসলাম (৩৫), মো. কামারুল শেখ (২২), মো. কামরুল হাসান (৩৮), মো. হায়দার শেখ (২৯), মো. হারুন শেখ (৫৫), মো. আইয়ুব আলী শেখ (৫২), মো. মাফিকুল গাজী (৩৮), মো. কবির গাজী (৩২), মো. পলাশ হোসেন (৩৫), মো. বাছের শিকদার (১৭), মো. আ. হান্নান সরদার (২৩), মো. ইজাজ মোল-্লা (৪১), মো. মহাসিন মোড়ল (৩৯) এবং মো. ইয়াকুব সরদার (২৯)। এনিয়ে গত ৯ মাসের মধ্যে সুন্দরবনের কুখ্যাত ৯টি বনদস্যু বাহিনীর ৯২ জন সদস্য ১৯৫টি আগ্নেয়াস্ত্র এবং ১০ হাজার ১৪৩টি গোলাবারুদ জমা দিয়ে আত্মসমর্পন করল।

মতামত...