,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

সৃজনশীল বই শুদ্ধ মননের আয়না:ডিসিহিলে বই মেলায় মেয়র

dনাছির মীর, বিডিনিউজ রিভিউজ.কম:: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বঙ্গবন্ধু বইমেলার উদ্যাপন পরিষদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক আ.জ.ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, সৃজনশীল বই শুদ্ধ মননের আয়না। মুক্তিযুদ্ধের বিজয় উৎসব ও বঙ্গবন্ধু বইমেলা আত্ম আবিষ্কারের প্রধান উৎস। তিনি আরো বলেন, বিশ্বসভায় মাথা উচু করে দাঁড়িয়েছে। এই উচ্চতাকে হিমালয়সম শিখরে পৌঁছে দিতে হবে। এই জন্য আমাদের জনকল্যাণমুখী কর্ম উদ্যোগে নিবেদিত হতে হবে। গতকাল ১৪ ডিসেম্বর বুধবার বিকেলে নগরীর নজরুল স্কয়ার ডিসি হিলে বেলুন, পায়রা, জাতীয় পতাকা, পরিষদের পতাকা উত্তোলন ও জাতীয় সঙ্গীতের ১২ দিনব্যাপী বঙ্গবন্ধু বইমেলা ও মুক্তিযুদ্ধের বিজয় উৎসবের উদ্বোধন ঘোষণাকালে তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, নতুন প্রজন্মকে জানাতে হবে বাঙালি জাতিসত্তার প্রকৃত ইতিহাসের সঠিক সন্ধান দিতে হবে। কারণ তারাই আমাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের সম্পদ। তারা যেন বিপথগামী না হয় সেদিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে। প্রধান অতিথির ভাষণে বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর চেয়ারম্যান একুশে পদকপ্রাপ্ত ও বরেণ্য কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন বলেছেন পাহাড়, সমুদ্র, নদী পরিবেশটিতে চট্টগ্রাম ভূ-প্রাকৃতিকভাবে অনন্য বৈচিত্র্যে সুন্দর্যময়। এই ভূমি বিপ্লব তীর্থ। ১৯৬৬ সালে লালদিঘীর ময়দানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রথম প্রকাশ্যে ৬ দফা মুক্তি সনদ ঘোষণা করেছিলেন এবং এই চট্টগ্রাম থেকেই মহান মুক্তিযুদ্ধের সূচনা হয়েছিল। তাই আজ আমি এই মাটিতে দাঁড়িয়ে রোমাঞ্চিত। তিনি আরো বলেন, পঠন-পাঠনের মনন চর্চা অত্যন্ত ক্ষীন। তরুণ প্রজন্ম বই বিমুখ। তাদের মস্তিস্ক কম্পিউটার ভাইরাসে সীমাবদ্ধ। তাদের কল্পনা শক্তি হ্রাস পেয়েছে। এ থেকে উত্তরণের উপায় অন্বেষণ আমাদেরকে ভাবতে হবে। বিশেষ অতিথির ভাষণে বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সহ-সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন বলেন, বঙ্গবন্ধু বইমেলা সৃজনশীল বই বিপণনের ক্ষেত্র অবশ্যই বাড়াতে হবে। আজ হয়তো প্রাপ্তি সীমিত। তবে অবশ্যই আগামীতে পূর্ণতা হবে। আমার আবেদন, যারা একানে এসেছেন তারা অন্তত একটি বই কিনুন, তাহলে প্রত্যাশার প্রাপ্তিযোগ ঘটবে। সভাপতির ভাষণে বঙ্গবন্ধু বইমেলা ও মুক্তিযুদ্ধের বিজয় উৎসব উদ্যাপন পরিষদ চেয়ারম্যান মঈনুদ্দিন আহমেদ মিন্টু বলেন, বিজয়ের এই ডিসেম্বর মাসে বঙ্গবন্ধুকে হৃদয়ে-মননে ধারণ করার জন্যই এই বইমেলা। যাঁরা এই আয়োজনে সম্পৃক্ত হয়েছেন তাঁরা আমাদের মনের মানুষ। স্বাগত বক্তব্যে পরিষদের সদস্য সচিব প্রাবন্ধিক ও লেখক শেখ মুজিব আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধু বাঙালি চেতনার সৈকতে ভোরের নোঙর। বাঙালির অন্তর থেকে তাঁকে মুছে ফেলা যাবে না। বঙ্গবন্ধু বইমেলা তাঁকে চিরঞ্জীব করে রাখার উপলক্ষ্য। আবৃত্তি শিল্পী এডভোকেট মুজাহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় বঙ্গবন্ধু বইমেলা ও মুক্তিযুদ্ধের বিজয় উৎসবের ঘোষণাপত্র পাঠ করেন পরিষদের প্রধান সমন্বয়কারী সংস্কৃতিকর্মী খোরশেদ আলম। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কার্যকরী মহাসচিব সুমন দেবনাথ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নঈমুদ্দিন চৌধুরী । অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয় শ্রমিক লীগর কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক আলহাজ্ব শফর আলী, যুগ্মবাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম জেলা ইউনিট কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা মো: সাহাব উদ্দিন, মহানগর কমান্ডার মোজাফফর আহমেদ, দৈনিক বীর চট্টগ্রাম মঞ্চের সম্পাদক সৈয়দ উমর ফারুক, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সাংবাদিক রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, নগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য শেখ মো: ইছহাক, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, চসিক প্যানেল মেয়র নিছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, কাউন্সিলর আবদুল কাদের, নাজমুল হক ডিউক, হাসান মুরাদ বিপ্লব, আশরাফুল আলম, জেসমিন পারভিন জেসি, আবিদা আজাদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আনোয়ার ইসলাম বাপ্পী, যুবলীগ নেতা জাবেদুল আলম সুমন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুন, ইয়াসির আরাফাত, এম এ.মান্নান, শিমুল, সুমন চৌধুরী, ফয়সাল বাপ্পী, জালাল উদ্দিন, জসিম উদ্দিন মিঠুন, এডভোকেট কামরুল আজম টিপু, এডভোকেট নজরুল ইসলাম, আখতারুজ্জামান রোমেল, এডভোকেট মহিউল ইসলাম সোহেল, ইসলাম নারী নেত্রী নাহিদা আক্তার নাসরিন, সৈয়দা শাহ নেওয়াজ বেগম শাহীন, রুপালী খাতুন, রেবা বড়–য়া, হোসনে আরা পারুল প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতেই শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণে এক মিনিট দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করা হয়। অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশন করেন নিবেদন শিল্পীগোষ্ঠী, বিশেষ সঙ্গীতানুষ্ঠান পরিবেশন করেন বেতার, টেলিভিশন ও নব প্রজন্মের শিল্পীবৃন্দ। আলোচনা সভা শেষে দলীয় নৃত্য পরিবেশন করেন দ্যা স্কুল অব ওরিয়েন্টাল ডান্স। বৃন্দ আবৃত্তি পরিবেশন করেন- সন্দীপনা আবৃত্তি বিভাগ। বিশেষ সঙ্গীতানুষ্ঠান পরিবেশন করেন বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেতার এবং নবপ্রজন্মের শিল্পীবৃন্দ। আজ বিকেলে বঙ্গবন্ধু বইমেলা ও মুক্তিযুদ্ধের বিজয় উৎসব উদ্যাপন পরিষদ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী আলহাজ্ব নরুল ইসলাম বিএস.সি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, ওয়াসিকা আয়েশা খান এম.পি, দৈনিক পূর্বদেশের সম্পাদক ওসমান গণি মনসুর, দৈনিক বীর চট্টগ্রাম মঞ্চের সম্পাদক সৈয়দ উমর ফারুক, দৈনিক পূর্বকোণের বার্তা সম্পাদক ও চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক কলিম সরওয়ার।

মতামত...