,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

সৈয়দ আশরাফ না ওবায়দুল কাদের: কে হচ্ছেন আওয়ামী লীগের সম্পাদক?

syed-asraf-quderবিশেষ সংবাদদাতা, বিডিনিউজ রিভিউজঃ  আওয়ামী লীগের ২০তম কাউন্সিলের মধ্য দিয়ে ঐতিহ্যবাহী এ দলটিতে নতুন নেতৃত্ব আসবে। এমন ঘোষণা দিয়েছেন দলটির শীর্ষ নেতারা। তবে দলের সভাপতি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই থাকছেন—এটা অনেকটা নিশ্চিত। কিন্তু সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে তৈরি হয়েছে দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে নানান কৌতুহল। এখন পর্যন্ত এই পদ পাওয়ার দৌড়ে দুজনের নাম নীতিনির্ধারকদের কাছ থেকে শোনা গেছে। একজন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, অন্যজন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তবে নীতিনির্ধারকরা এও বলেছেন, দলের সভাপতির ইচ্ছাই এক্ষেত্রে শেষ কথা।

 প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদ থেকে স্বেচ্ছায় অবসর গ্রহণের আগ্রহ দেখালেও নেতাকর্মীরা তার বিকল্প হিসেবে কাউকে কল্পনাও করতে পারছেন না। তিনি টানা অষ্টম দফায়ও দলের সভাপতি হচ্ছেন—এটি মোটামুটি নিশ্চিত। মূলত এ কারণেই এখন পর্যন্ত দলের সাধারণ সম্পাদক পদই জাতীয় সম্মেলনের প্রধান আকর্ষণ হয়ে আছে।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ কাউন্সিলের মধ্য দিয়ে নেতা নির্বাচন করে। এই কাউন্সিলেও নতুন নেতৃত্ব তৈরি হবে। কে কোন পদে আসবেন সেটা দলীয় প্রধানই ভালো বলতে পারবেন। তিনি যাকে যোগ্য মনে করবেন সেই-ই হবেন সাধারণ সম্পাদক। আমি এ ব্যাপারে আর কিছু বলতে চাই না।

জানা গেছে, গত বুধবার রাতে গণভবনে কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। বর্তমান কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির শেষ বৈঠকে দলের সাধারণ সম্পাদকের বিষয়টি নিয়েও আলোচনা হয়। এ পদে পরিবর্তন আনলে কেমন হয়, কাকে এ পদের দায়িত্ব দেওয়া যায়—এমন বিষয় আলোচনা হয়। ওই বৈঠকে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিয়েও আলোচনা ওঠে। এতে ধারণা করা হচ্ছে, আওয়ামী লীগের ২০তম কাউন্সিলে দলের সাধারণ সম্পাদক পদে ওবায়দুল কাদের আসতে পারেন।

আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, কাউন্সিলেই জানতে পারবেন কে হচ্ছেন সাধারণ সম্পাদক। ওবায়দুল কাদেরের বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না—এ প্রশ্নে তিনি বলেন, আমি এর বেশি আর কিছুই বলতে পারব না।

আওয়ামী লীগের এই সম্মেলনে চমক থাকছে। কী চমক থাকছে, তা নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে চলছে নানা জল্পনা। দলটির শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের মধ্যেও চলছে নানা হিসাবনিকাশ। কার কপাল খুলছে, আর কারটা পুড়ছে—এমন শঙ্কা তাদের মধ্যে জেঁকে বসেছে। সবার মনে একই প্রশ্ন উঁকি দিচ্ছে, কী হচ্ছে আওয়ামী লীগের ২০তম সম্মেলনে। এর উত্তর একমাত্র দলের সভাপতি শেখ হাসিনাই জানেন। তবে সম্মেলনের মাত্র দুদিন আগে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ওবায়দুল কাদেরের নাম আসায় দলের মধ্যে আলোচনা চরম আকার ধারণ করছে। প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, আসলে কি ওবায়দুল কাদের সাধারণ সম্পাদক হচ্ছেন? নাকি সৈয়দ আশরাফই তৃতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হচ্ছেন। নাকি নতুন কেউ?

দলের নেতাকর্মীরা নানা হিসাবনিকাশ করলেও তারা কোনো স্পষ্ট চিত্র পাচ্ছে না। যদিও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামই এই মুহূর্তে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন। তবে সৈয়দ আশরাফকে আরেক দফায় সাধারণ সম্পাদক করা নিয়ে দলের ভেতরে পক্ষে-বিপক্ষে যুক্তি রয়েছে। দলীয় কর্মকাণ্ডে তার কম আগ্রহে নেতাকর্মীদের মধ্যে যে নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির সৃষ্টি হয়েছে, তা স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীও জানেন। তবে নানা হিসাবনিকাশ করে অনেকে বলছেন, সৈয়দ আশরাফই মন্দের ভালো। সাধারণ সম্পাদকের দৌড়ে রয়েছেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ওবায়দুল কাদের। সম্মেলনকে ঘিরে তিনি আরো সক্রিয় হয়েছেন। তাকে নিয়েও নেতাকর্মীদের আগ্রহ রয়েছে। গত সম্মেলনেও এই দুই নেতা দলের সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় ছিলেন।

মতামত...