,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

স্টক ব্যবসার আড়ালে ঢাকায় ইয়াবা পাচার

yabaনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ ঢাকা, স্টক ব্যবসায়ী পরিচয়ে তাকবির মুরাদ ওরফে মামুন ও মোহাম্মদ ওবায়দুল্লাহ কক্সবাজার থেকে কৌশলে ইয়াবার বড় চালান ঢাকায় এনে বিভিন্নজনের কাছে বিক্রি করে।
ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একটি দল সোমবাররাতে  এই দুজনসহ ১০ ইয়াবা ব্যবসায়ীকে রাজধানীর দারুসসালাম থেকে গ্রেফতার করে। তাদের কাছ থেকে পাওয়া ৭০ হাজার পিস ইয়াবা ও মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত দুটি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়।

গ্রেফতার অপর ৮ জন হলেন- ইয়াবা ব্যবসায়ী চক্রের মূল হোতা নবী হোসেন ওরফে ভুট্টো, আরিফুল হাসান, মিঝু হোসেন ওরফে হোসেন, শরিফ সিকদার ওরফে আব্বাস, ইয়াছিন, মনিরুজ্জামান ওরফে মনির, হামিদুল ও রায়হান ফরাজী।

মঙ্গলবার তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচদিনের রিমান্ডে নিয়েছে ডিবি।

রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার এবং কাউন্টার টেরোরিজম ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে দারুস সালাম টাওয়ারের ক্যালকাটা ড্রাই ক্লিনার্সের সামনে থেকে ওই ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, ভুট্টো কক্সবাজারের মোহাম্মদ আলী, সোহেল মিয়া ও হারুনের কাছ থেকে ইয়াবার চালান বড় বড় পরিবহনের মাধ্যমে ঢাকায় আনতেন। এরপর বিক্রির জন্য এসব ইয়াবা, মিঝু হোসেন, শরিফ সিকদার ও হামিদুলের কাছে সরবরাহ করা হতো। তাকবির মুরাদ ও ওবায়দুল্লাহ স্টক ব্যবসার নাম করে মূলত ইয়াবা বিক্রি করতেন। তারা রাজধানী ছাড়াও দেশের বিভিন্ন জায়গায় পাইকারি ও খুচরা দামে ইয়াবা বিক্রি করে আসছিলেন। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে দারুস সালাম থানায় মামলা হয়েছে। ডিবির বোমা নিষ্ক্রিয়করণ দলের অতিরিক্ত উপকমিশনার ছানোয়ার হোসেনের তত্ত্বাবধানে জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার রহমত উল্লাহ চৌধুরী এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন।

গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০দিনের রিমান্ড চেয়ে মঙ্গলবার তাদের আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে ঢাকার মহানগর হাকিম প্রণব কুমার হুই তাদের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির এসআই আবুল বাশার রিমান্ড আবেদনে বলেন, আসামিরা সংঘবদ্ধ মাদকচক্রের সদস্য। চক্রের অন্য সদস্যদের ধরতে আসামিদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন।

 

বি এন আর/০০১৬০০৩০০১/০০০৩১৭ /এস

মতামত...