,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

স্বপ্নের পদ্মাসেতুঃ স্বাধীন বাংলাদেশের বড় প্রকল্প


POMDA1দিলরুবা খানম
, ঢাকা, ১১ ডিসেম্বর (বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকম)::দেশের ৪৫ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় প্রকল্পের নাম পদ্মাসেতু,এটি দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চ্যালেঞ্জস।সেই চ্যালেঞ্জ দেশের নিজস্ব অর্থায়নে সেতু নির্মাণ। সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে চলছে এর নির্মাণ কাজ।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এভাবেই বর্ণনা দিলেন। তিনি  বলেন, ‘ বিজয়ের মাসে এটি স্বাধীনতার ৪৫ বছর পরে বাঙালির আরেক বিজয়। এক বিজয় ৭১-এর নায়ক মহাবীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আরেকটি বিজয় পদ্মাসেতুর নির্মাণের মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর বীরকন্যা শেখ হাসিনার । এটা তার অসম সাহসিকতার সোনালী ফসল।

আয়তন ও নির্মাণব্যয়ের দিক থেকে দেশের সবচেয়ে বড় প্রকল্প পদ্মা সেতু। ছয় দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতুটি বাংলাদেশের বৃহত্তম এবং দক্ষিণ এশিয়ায় দ্বিতীয় বৃহত্তম সেতু। সর্বশেষ সংশোধনীর পর এর ব্যয় দাঁড়িয়েছে ২৮ হাজার ৭৯৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকা। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, পদ্মা সেতু প্রকল্পের প্রায় ২৭ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে।সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম বলেন, পুরো প্রকল্প হিসেবে এক-চতুর্থাংশ কাজ শেষ। ভূমি অধিগ্রহণ এবং পুনর্বাসনের মতো জটিল কাজও শেষ হয়েছে।নির্মাণকাজের প্রায় ১৭ ভাগ শেষ হয়েছে। তিনি বলেন, গত ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সেতুর ১৪ দশমিক ৯ ভাগ কাজ শেষ করার পরিকল্পনা ছিল। কাজ শেষ হয়েছে ১৭ দশমিক ৩ ভাগ। লক্ষ্যমাত্রার ১২২ দশমিক ৮৬ শতাংশ অর্জিত হয়েছে। তবে বাকি কোনো প্যাকেজই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করেনি। নদীশাসনের কাজের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১৭ দশমিক ৮ ভাগ। কাজ হয়েছে ১৩ দশমিক ৭৩ ভাগ। লক্ষ্যমাত্রার ২২ দশমিক ৮৫ শতাংশই অর্জিত হয়নি। কারণ হিসেবে আকস্মিক নদীভাঙনকে দায়ী করা হচ্ছে। জাজিরাপ্রান্তে সংযোগ সড়কের ৭০ দশমিক ৪৯ ভাগ কাজ শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও শেষ হয়েছে ৫০ দশমিক ৮৮ ভাগ। মাওয়াপ্রান্তে সংযোগ সড়কের ৬৭ দশমিক ৩১ ভাগ কাজ শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও শেষ হয়েছে ৫৯ দশমিক ৮৭ ভাগ।
চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশনের (এমবিইসি) কনস্ট্রাকশন মূল সেতু নির্মাণ করছে। চার বছরের চুক্তিতে গত বছরের ২৬ নভেম্বর সেতুর কার্যাদেশ দেওয়া হয় প্রতিষ্ঠানটিকে। ১২ হাজার ১৩৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকায় সেতু নির্মাণে সময় লাগবে তিন বছর।

মতামত...