,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

স্মার্ট কার্ড পাচ্ছেন ভোটারা

স্টাফ রিপোর্টার, বিডিনিউজ রিভিউজঃ অবশেষে ভোটারদের হাতে দেয়া হচ্ছে স্মার্ট কার্ড। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আসছে দোসরা অক্টোবর আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে এই কার্ড বিতরণ কার্যক্রম। তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা সম্বলিত সর্বাধুনিক এই কার্ডটির মাধ্যমে সেবা প্রদানের জন্য এরই মধ্যে ৬২টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে দেশের দশ কোটি ভোটারের হাতে তুলে দেয়া হবে স্মার্ট কার্ড।

কাগজের তৈরি জাতীয় পরিচয়পত্র ভোটারদের হতে পৌঁছানোর পর থেকেই এর স্থায়িত্ব, কিংবা জালিয়াতির নিয়ে ছিল নানা অভিযোগ। বিষয়টি আমলে নিয়েই প্লাস্টিকের কার্ডে চিপের মাধ্যমে তথ্য সংরক্ষণের ব্যবস্থা সংবলিত একটি আধুনিক পরিচয় পত্রের কথা ভাবে নির্বাচন কমিশন। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১১ সালে শুরু হয় স্মার্টকার্ড প্রকল্প। নানা জটিলতা পেড়িয়ে প্রকল্পের বাড়িয়ে অবশেষে চূড়ান্ত হল দিনক্ষণ।

প্রাথমিকভাবে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের ভোটারদের স্মার্টকার্ড দেয়া হবে ২০১৪ সালে হালনাগাদকৃতদের। আর বিতরণের সমই সংগ্রহ করা হবে দশ আঙ্গুলের ছাপ ও চোখের প্রতিচ্ছবি।

আন্তর্জাতিক মানের এই কর্ডে থাকছে জালিয়াতি প্রতিরোধে আধুনিক ব্যবস্থা । তিনস্তরের নিরাপত্তার প্রথম স্তর থাকবে দৃশ্যমান, দ্বিতীয় স্তর যাচাইয়ে দরকার হবে ডিভাইসের আর তৃতীয় স্তরে ফরেনসিক টেস্ট।

কেন্দ্রীয় ডাটাবেজ হতে নির্বাচন কমিশনের অনুমতি নিয়ে অনলাইনে এনআইডি নম্বর ব্যবহার করে তথ্য যাচাই করা যাবে। পাশাপাশি বারকোড রিডার ও আঙ্গুলের ছাপের মাধ্যমেও যাচাই করা যাবে তথ্য।

এরই মধ্যে সরকারি বেসরকারি বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তথ্য প্রদানের চুক্তি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন।

স্মার্ট কর্ডের প্রকল্প হাতে নেয়ার সময় নয় কোটি ভোটার থাকলেও পরবর্তী কালে ভোটার হওয়া বর্ধিত এক কোটি নাগরিকদেরও ২০১৭ এর ডিসেম্বরের মধ্যে স্মর্টকার্ড দেয়া হবে বলে জানিয়েছে কমিশন।

মতামত...