,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

২০২১ সালে আইসিটি রপ্তাণী ৫ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হবেঃপলক

aনিজস্ব প্রতিবেদক, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃচট্টগ্রাম অফিস/ চবি প্রতিনিধি,তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আমাদের লক্ষ্য ২০২১ সালে আইসিটি রপ্তাণী ৫ বিলিয়ন ডলারে নিয়ে যাওয়া। আর এতে প্রধান ভূমিকা রাখবে আইটিতে প্রশিক্ষিত দক্ষ মানব সম্পদ। এ সেক্টরে ২০ লাখ তরুণ তরুণীকে প্রশিক্ষন প্রদান করা হবে।

তিনি রোববার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ব্যবসায় অনুষদ মিলনায়তনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ, এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড গভর্নেন্স (এলআইসিট) প্রকল্প আয়োজিত ‘দক্ষ মানব সম্পদ তৈরি ও কর্মসংস্থানের সুযোগ’ শীর্ষক সেমিনার ও ল্যাপটপ বিতরন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন,বাংলাদেশকে সারা বিশ্বে। বর কাছে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে উপস্থাপন করতে চাই তরুণদের নেতৃত্বে। বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত কানেকটিবিটি পৌছে দেয়া হবে।

তিনি বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীদের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির অমিত সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশের অভিযাত্রাকে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছে দিতে আইটিতে ক্যারিয়ার গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

জুনায়েদ আহমেদ পলক ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে প্রেরণা জাগানো বক্তৃতায় তথ্যপ্রযুক্তি খাতে সম্ভাবনার বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় বা কলেজে পড়াশুনারত অবস্থায় আইটিতে উন্নত প্রশিক্ষণ গ্রহণের সুযোগ করে দিয়েছে সরকার। এ প্রশিক্ষণ শিক্ষার্থীদের দক্ষ মানব সম্পদ হিসেবে গড়ে তোলার পাশাপাশি নিজেদের আইটিতে ক্যারিয়ার গড়ে তোলার পথ সুগম করবে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি)’র নির্বাহী পরিচালক এস এম আশরাফুল ইসলাম, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীন আখতার, এক্সিম ব্যাংক’র রিজিওনাল ম্যানেজার মাঈনুদ্দিন।

এলআইসিটি প্রকল্পের আইটি/আইটিইএস টম লিডার সামি আহমেদ তথ্যপ্রযুক্তি খাতে সরকারের গৃহীত নানা উদ্যোগ, এলআইসিটি প্রকল্পের আওতায় বিশ্বমানের প্রশিক্ষণে ৪৫ দক্ষ মানব সম্পদ তৈরির লক্ষ্যে চলমান প্রশিক্ষণ কার্যক্রম এবং ন্যাশনাল এন্টারপ্রাইজ আর্কিটেকচার (এনইএ) সস্পর্কে একটি পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপন করেন।
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, আগামী তিন বছরে আইটি পেশাজীবির সংখ্যা বর্তমান আড়াই লাখ থেকে ১০ লাখে উন্নীত করার লক্ষ্যে সরকার বেসরকাির খাতের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

ছাত্র-ছাত্রীদের আইটি প্রশিক্ষণর গ্রহণের আহ্বান জানিয়ে পলক বলেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ একাই ২০১৮ সালের মধ্যে বিশ্বমানের প্রশিক্ষণে এক লক্ষ দক্ষ মানব সম্পদ তৈরি করবে। এরমধ্যে এলআইসিটি প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৪৫ হাজার দক্ষ মানব সম্পদ তৈরির প্রশিক্ষণ চলছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, কর্মসংস্থানের জন্য সরকার নানা কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। দেশে ১২টি হাইটেক পার্ক গড়ে তোলা হচ্ছে। যশোরের সফটওয়্যার পার্ক নির্মাণ সমাপ্তির পথে। কালিয়াকৈরে হাইটেক পার্কের উন্নয়ন জোরেশোরে এগিয়ে চলছে। এটি সমাপ্ত হলে প্রায় ৭০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে।

মন্ত্রী এসময় চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরীকে ডিজিটালাইজড করার ঘোষনা দেন।

বিসিসি’র নির্বাহী পরিচালক এস এম আশরাফুল ইসলাম বলেন, দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির লক্ষ্যে সরকার বিশেষায়িত ল্যাব স্থাপন করেছে। অনেকেই জানেন না যে আমাদের দেশে টাইটানিয়াম, স্মাক ল্যাবের মতো বিশেষায়িত ল্যাব রয়েছে। যেখানে বিশ্বমানের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। মন্ত্রী পরে মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে ল্যাপটপ বিতরন করেন।

মতামত...