,

সর্বশেষ
bnr ad 250x70 1

২০ হাজার টাকা দামের মোবাইল পুকুরে ছুড়ে মারলেন ওসি

245আনোয়ারা সংবাদদাতা, বিডি নিউজ রিভিউজ ডটকমঃ আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) বিরুদ্ধে ২০ হাজার টাকা দামের মোবাইল সেট পুকুরে ছুড়ে ফেলার অভিযোগ করেছেন স্থানীয় যুবক মহিউদ্দিন চৌধুরী অসিম (৩৬)।

তার অভিযোগ, উপজেলার হাইলধর ইউনিয়নের দক্ষিণ ইছাখালী গ্রামে শনিবার দুপুরে একটি সালিসি বৈঠকের ভিডিওটিত্র ধারণ করা হয়েছে এমন সন্দেহ থেকে ওসি এ কাণ্ড ঘটিয়েছেন।

মহিউদ্দিন চৌধুরী অসিম বলেন, দক্ষিণ ইছাখালীর সিকদার বাড়িতে জনৈক বদিউল আলম ও আবদুল জব্বার গংয়ের সালিসি বৈঠক চলাকালে কৌতূহলবশত আমিও গিয়েছিলাম। সালিস চলাকালে ওসি আবদুল লতিফসহ কয়েকজন মুরুব্বি চেয়ারে বসা ছিলেন। আমি কিছুটা তফাতে দাঁড়িয়ে ছিলাম। আমার হাতে মোবাইল ছিল। কিছুক্ষণ পর ওসি সাহেব ভিডিও করছি কিনা জানতে চান। আমি বললাম, ভিডিও করছি না। এই দেখুন। তখন উনি মোবাইলটা নিয়ে মাটিতে ফেলেন। পা দিয়ে আঘাত করে দুমড়ে-মুচড়ে পাশের পুকুরে ছুড়ে মারেন।

মহিউদ্দিন জানান, মোবাইল ফোনটি ২০ ‍হাজার টাকায় সদ্য কিনেছিলেন তিনি। ওই ফোনে আত্মীয়-স্বজনের অনেক নাম্বার, জরুরি ডকুমেন্ট, ছবি সেভ করা ছিল।

স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ, যমুনা টিভির ৩৬০ ডিগ্রি অনুষ্ঠানের দলটি আনোয়ারা থানায় নাজেহাল হওয়ার পর থেকে ওসি সব সময় ভাব গাম্বীর‍্য ভাবে চলা ফেরা করেন।

ওসি আবদুল লতিফের কাছে জানতে চাইলে বলেন, ঘটনা টি তার জানানেই এবং  তিনি  কারও মোবাইল পুকুরে ছুড়ে মারিনি।

তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, যেহেতু আমি কারও মোবাইল পুকুরে ফেলিনি। তাই মিথ্যা অভিযোগ করছে এটা বলার অপেক্ষা রাখে না।

বি এন আর/০০১৬/০০৪/০০৩/০০০৪৭৫৪/ এন

মতামত...